যে কাজটি করলে রাউটার সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন! সাথে ফ্রি পাবেন দুর্দান্ত নেট স্পিড

আজকে আমরা কথা বলব বাংলাদেশের জাতীয় সমস্যার রাউটার অফ করে অন করা নিয়ে, রাফসান 360 সলিউশন কাজ করছে আপনাদের দৈনন্দিন জীবনের আইটি সমস্যার সমাধান নিয়ে তারই ধারাবাহিকতায় আজকে আমরা সমাধান করব রাউটার অফ করে অন করা সলিউশন নিয়ে এছাড়া এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ইনফরমেশন শেয়ার করব যার ফলে আপনার রাউটারের স্পিড বর্তমানের তুলনায় বাড়ি নিতে পারবেন।
আমার ধারনা মতে আমাদের দেশে যারা ওয়াইফাই রাউটার ব্যবহার করেন তাদের ক্ষেত্রে আপনার ওয়াইফাই সমস্যা জনিত কারণে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার বা আই এস পি কে ফোন দিলে তারা আপনার রাউটার অফ করে অন করতে বলি নাই এমন পারসেন্টেন্স খুবই কম। আমি নিজেও এমন কথার সম্মুখীন হয়েছি । এখন বিষয় হলো কেন রাউটার অফ করে অন করতে বলে এবং এ থেকে কি বাঁচার কোন উপায় আছে কি না? তো চলুন দেখি কি কি উপায়ে এটি সমাধান করা যায়।
একবার বেশ কিছু আইএসপি বা ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার একটি সমীক্ষা চালানো যেসকল গ্রাহক তাদের কাছে অভিযোগ করছে যে তারা ওয়াইফাই পাচ্ছে না বা ইন্টারনেট স্পিড একদম স্লো তাদের মধ্যে মোস্ট অফ দা কেসে দেখা গেল নিম্ন মানের ওয়াইফাই রাউটার কেনার ফলেও অধিক সময় অন রাখার ফলে গরম হয়ে হ্যাং করছে অথবা ইন্টারনেট স্পিড স্লো হয়ে যাচ্ছে তাছাড়া আমাদের মত High-Temperature দেশে যখন একটি রাউটার ঘন্টার পর ঘন্টা দিনের পর দিন প্রয়োজনে অপ্রয়োজনে রাউটার চালু করে রাখা হয় এজন্য অনেক সময় রাউটার হ্যাং করে বসে,ওয়াইফাই পায় না বা ইন্টারনেট স্পিড একদম স্লো হয়ে  যাই । এ থেকে বাঁচার জন্য আপনাকে অবশ্যই একটি ভালো রাউটার কিনতে হবে এবং দিনে অন্তত কিছুটা সময় হলো রাউটার অফ রাখা উচিত।

তাছাড়া আপনি যখন রাউটার স্থাপন করবেন তখন আপনার রাউটাটি ফাঁকা স্থানে লাগাবেন যেখানে সহজেই বায়ু  প্রবেশ করতে পারে। রাউটার কখনোই ফ্রিজ,মাইক্রোওভেন,টিভি,কর্ডলেস ফোন এ সকল এঁর উপর রাখবেন না ! পারলে এই সকল জিনিস থেকে দুরে রাখুন। মাসে একবার প্রয়োজন অনুসারে রাউটারের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করুন কারন আপনার রাউটারের মাধ্যমে আপনার জানা ও অজানা কেউ ওয়াইফাই ব্যবহার করলে তা ডিসকানেক্ট হয়ে যাবে, এছাড়া হয়তো আপনি কাউকে একবার ওয়াইফাই ব্যবহার করার জন্য পাসওয়ার্ড দিয়েছেন কিন্তু পরবর্তীতে আপনি রউটার ব্যাবহার করতে দিতে চান না সে ক্ষেত্রে আপনি পাসওয়ার্ড পরিবর্তনের ফলে সেই ইউজার ডিসকানেক্ট করে দিতে পারবেন সহজে। এছাড়াও আমরা জানি যে একবার রাউটারের সাথে মোবাইল বা আপনার ডিভাইস কানেক্ট হলে পরবর্তীতে সে অটোমেটিক্যালি কানেক্ট হয়ে যাবে তখন আর পাসওয়ার্ড এর প্রয়োজন পড়ে না।

এছাড়াও আপনি রাউটার কেনার আগে ভালো মানের রাউটার নির্বাচন করুন কারণ একটি বিষয় মাথায় রাখবেন যে রাউটার আপনার কে দিনে 24 ঘন্টা সপ্তাহের 7 দিন সার্ভিস দিবে এখন বর্তমানে অনেক ভালো ভালো ডুয়েল ব্যান্ডের রাউটার পাওয়া যাচ্ছে যে সকল রাউটার অনেক ভালো সার্ভিস দিয়ে থাকে। আমার রাউটার নিয়ে অনেকগুলো ভিডিও করা আছে যে কোন কোন রাউটার ভাল হবে বর্তমান সময়ে আপনি চাইলে আমার ভিডিওগুলো দেখে সেখানে একটি ধারণা নিতে পারেন।
এছাড়া আপনার ইন্টারনেট স্পিড ঠিক আছে কিনা সেটি দেখার জন্য আপনি  https://fast.com/ অথবা http://www.pingtest.net/ এর মাধ্যমে আপনার ইন্টারনেটের স্পিড চেক করতে পারেন।

তবে হ্যাঁ আপনার ইন্টারনেটের কোন সমস্যা দেখা দিলে আগে আপনি দেখে নিন আপনার ওয়াইফাই রাউটারের পাওয়ার সংযোগ দেওয়া আছে কিনা এবং ইন্টারনেটের যে কেবল  সেই কেবল ঠিকঠাকভাবে সংযোগ করা আছে কিনা আপনারা অবশ্যই দেখতে পারবে যে প্রতিটা রাউটারের একটি করে ইন্ডিকেটর লাইট থাকে যার মাধ্যমে আপনি দেখতে পারবেন যে আপনার যে ইন্টারনেট লাইন লাগানো আছে এই লাইনটি আলো জলে কিনা অথবা আপনার যে পাওয়ার লাইনটি দেওয়া আছে ইন্টারনেটে পাওয়া যাচ্ছে কিনা।এসকল বিষয় নিশ্চিত হওয়ার পরেও যদি সমাধান না হয় তাহলে আপনি আপনার ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার কে নির্দ্বিধায় ফোন দিতে পারেন। ধন্যবাদ আমদের সাথে থাকার জন্য নতুন নতুন আর্টিকেল পেতে নিয়মিত চোখ রাখুন।